ঢাকা ০৫:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১৬৭ ভিক্ষুককে আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠাল ডিএনসিসি

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আওতাধীন বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৬৭ ভিক্ষুককে আশ্রয়কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ও বুধবার রাজধানীর গুলশান, বনানী, তেজগাঁও, নতুনবাজার ও মিরপুর এলাকায় ভিক্ষুকমুক্ত করতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে নেতৃত্বে দেন ডিএনসিসি অঞ্চল-৩ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জুলকার নায়ন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহবুব হাসান এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসান। এছাড়াও অভিযানে সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাগণও উপস্থিত ছিলেন।

বুধবার দুপুরের অভিযান পরিচালনা করে ৯৭ জন ভিক্ষুককে এবং মঙ্গলবারের অভিযানে ৭০ জন ভিক্ষুককে সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে প্রেরণ করা হয়।

আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জুলকার নায়ন বলেন, ঢাকার বিভিন্ন এলাকাকে ভিক্ষুকমুক্ত হিসেবে ঘোষণা করার পরও সম্প্রতি ওই সব এলাকায় ভিক্ষুকের সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে। বিশেষ করে গুলশান বারিধারা এলাকায় বিদেশি নাগরিকদের হয়রানি করতে দেখা যায়। আমরা অভিযান শুরু করেছি, এটি অব্যাহত থাকবে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Renaissance

আমাদের ওয়েসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আপনাদের আশে পাশের সকল সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করুন
আপডেট সময় ১০:২৭:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪
৭৯ বার পড়া হয়েছে

১৬৭ ভিক্ষুককে আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠাল ডিএনসিসি

আপডেট সময় ১০:২৭:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আওতাধীন বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৬৭ ভিক্ষুককে আশ্রয়কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ও বুধবার রাজধানীর গুলশান, বনানী, তেজগাঁও, নতুনবাজার ও মিরপুর এলাকায় ভিক্ষুকমুক্ত করতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে নেতৃত্বে দেন ডিএনসিসি অঞ্চল-৩ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জুলকার নায়ন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহবুব হাসান এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসান। এছাড়াও অভিযানে সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাগণও উপস্থিত ছিলেন।

বুধবার দুপুরের অভিযান পরিচালনা করে ৯৭ জন ভিক্ষুককে এবং মঙ্গলবারের অভিযানে ৭০ জন ভিক্ষুককে সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে প্রেরণ করা হয়।

আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জুলকার নায়ন বলেন, ঢাকার বিভিন্ন এলাকাকে ভিক্ষুকমুক্ত হিসেবে ঘোষণা করার পরও সম্প্রতি ওই সব এলাকায় ভিক্ষুকের সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে। বিশেষ করে গুলশান বারিধারা এলাকায় বিদেশি নাগরিকদের হয়রানি করতে দেখা যায়। আমরা অভিযান শুরু করেছি, এটি অব্যাহত থাকবে।