ঢাকা ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

সুপ্রিম কোর্ট খুলেছে আজ

অনলাইন ডেস্ক

সাপ্তাহিক ছুটি, সরকার ঘোষিত ছুটি, ঈদুল ফিতর এবং আদালতের অবকাশ শেষে সুপ্রিম কোর্ট খুলেছে আজ। ৩০ দিনের ছুটি শেষে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বিচারকাজ শুরু হয়েছে।

রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল সোয়া ৯টা থেকে প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগে বিচারকাজ শুরু হয়ে।

এদিকে সকাল সাড়ে ১০টার পর থেকে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের অর্ধশতাধিক (দ্বৈত ও একক) বেঞ্চে একযোগে বিচারকাজ শুরু হয়। দীর্ঘদিনের ছুটি শেষে সর্বোচ্চ আদালত খোলায় আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হচ্ছে আদালত প্রাঙ্গণ।

গত ২২ মার্চ থেকে সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন ছুটি শুরু হয়। এর সঙ্গে যোগ হয় পবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটি। কোর্টে নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ ছিল। তবে এসময়ে মামলা সংক্রান্ত জরুরি বিষয়াদি নিষ্পত্তির জন্য সুনির্দিষ্ট এখতিয়ার দিয়ে হাইকোর্ট বিভাগে বিভিন্ন বিচারিক বেঞ্চ গঠন করা হয়। এসব বেঞ্চে মামলা সংক্রান্ত জরুরি বিষয়াদির শুনানি হয়। অবকাশকালীন ছুটির সময় সপ্তাহে তিন দিন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতে বিচার কাজ পরিচালিত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Renaissance

আমাদের ওয়েসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আপনাদের আশে পাশের সকল সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করুন
আপডেট সময় ১১:২২:১৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
২২ বার পড়া হয়েছে

সুপ্রিম কোর্ট খুলেছে আজ

আপডেট সময় ১১:২২:১৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

সাপ্তাহিক ছুটি, সরকার ঘোষিত ছুটি, ঈদুল ফিতর এবং আদালতের অবকাশ শেষে সুপ্রিম কোর্ট খুলেছে আজ। ৩০ দিনের ছুটি শেষে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বিচারকাজ শুরু হয়েছে।

রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল সোয়া ৯টা থেকে প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগে বিচারকাজ শুরু হয়ে।

এদিকে সকাল সাড়ে ১০টার পর থেকে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের অর্ধশতাধিক (দ্বৈত ও একক) বেঞ্চে একযোগে বিচারকাজ শুরু হয়। দীর্ঘদিনের ছুটি শেষে সর্বোচ্চ আদালত খোলায় আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হচ্ছে আদালত প্রাঙ্গণ।

গত ২২ মার্চ থেকে সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন ছুটি শুরু হয়। এর সঙ্গে যোগ হয় পবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটি। কোর্টে নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ ছিল। তবে এসময়ে মামলা সংক্রান্ত জরুরি বিষয়াদি নিষ্পত্তির জন্য সুনির্দিষ্ট এখতিয়ার দিয়ে হাইকোর্ট বিভাগে বিভিন্ন বিচারিক বেঞ্চ গঠন করা হয়। এসব বেঞ্চে মামলা সংক্রান্ত জরুরি বিষয়াদির শুনানি হয়। অবকাশকালীন ছুটির সময় সপ্তাহে তিন দিন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতে বিচার কাজ পরিচালিত হয়েছে।