ঢাকা ০৫:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাসায় ফেরা হলো না বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তার

নিজস্ব সংবাদ :

একটি ভবন থেকে ইট পড়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক দীপান্বিতা বিশ্বাসের মৃত্যু হয়েছে। কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে রাজধানীর মৌচাকে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দীপান্বিতা বাংলাদেশ ব্যাংকের সদরঘাট শাখায় সহকারী পরিচালক (এডি) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২০০৫-২০০৬ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের আবাসিক ছাত্রী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরা জেলায়।

দীপান্বিতার স্বামী তরুণ বিশ্বাস জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শান্তিনগর থেকে হেঁটে বাসায় যাচ্ছিল দীপান্বিতা। রমনা থানা থেকে ফোন দিয়ে তার মৃত্যুর কথা জানানো হয়।

রমনা থানা সূত্রে জানা গেছে, মৌচাক ফখরুদ্দীন হোটেলের নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় ওপর থেকে একটি ইট পড়লে ঘটনাস্থলে দীপান্বিতার মৃত্যু হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। পুলিশের তদন্ত চলছে।

মাথায় ইট পড়ে মৃত্যুর ঘটনা আশপাশে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। ফুটেজে দেখা গেছে, সন্ধ্যা ৭টা ২৯ মিনিটে হাতে একটি ব্যাগ নিয়ে হেঁটে বাসা ফিরছিলেন দীপান্বিতা। হঠাৎ মাথায় ইট পড়লে সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি।

দীপান্বিতার তিন বছরের একটি সন্তান রয়েছে। সন্তান ও স্বামীকে নিয়ে সিদ্ধেশ্বরী এলাকায় থাকতেন। বর্তমানে লাশ আজগর আলী হাসপাতালে রয়েছে।

রমনা থানার এসআই মো. মোফাজ্জল বলেন, সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দেখা গেছে ওপর থেকে একটা ইট পড়েছে। কিন্তু আশপাশে কোন নির্মাণাধীন ভবন নেই। ব্যাপারটা কীভাবে হয়েছে আমরা তদন্ত করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Renaissance

আমাদের ওয়েসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আপনাদের আশে পাশের সকল সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করুন
আপডেট সময় ০১:৩০:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৪
৪০ বার পড়া হয়েছে

বাসায় ফেরা হলো না বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তার

আপডেট সময় ০১:৩০:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৪

একটি ভবন থেকে ইট পড়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক দীপান্বিতা বিশ্বাসের মৃত্যু হয়েছে। কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে রাজধানীর মৌচাকে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দীপান্বিতা বাংলাদেশ ব্যাংকের সদরঘাট শাখায় সহকারী পরিচালক (এডি) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২০০৫-২০০৬ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের আবাসিক ছাত্রী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরা জেলায়।

দীপান্বিতার স্বামী তরুণ বিশ্বাস জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শান্তিনগর থেকে হেঁটে বাসায় যাচ্ছিল দীপান্বিতা। রমনা থানা থেকে ফোন দিয়ে তার মৃত্যুর কথা জানানো হয়।

রমনা থানা সূত্রে জানা গেছে, মৌচাক ফখরুদ্দীন হোটেলের নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় ওপর থেকে একটি ইট পড়লে ঘটনাস্থলে দীপান্বিতার মৃত্যু হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। পুলিশের তদন্ত চলছে।

মাথায় ইট পড়ে মৃত্যুর ঘটনা আশপাশে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে। ফুটেজে দেখা গেছে, সন্ধ্যা ৭টা ২৯ মিনিটে হাতে একটি ব্যাগ নিয়ে হেঁটে বাসা ফিরছিলেন দীপান্বিতা। হঠাৎ মাথায় ইট পড়লে সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি।

দীপান্বিতার তিন বছরের একটি সন্তান রয়েছে। সন্তান ও স্বামীকে নিয়ে সিদ্ধেশ্বরী এলাকায় থাকতেন। বর্তমানে লাশ আজগর আলী হাসপাতালে রয়েছে।

রমনা থানার এসআই মো. মোফাজ্জল বলেন, সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দেখা গেছে ওপর থেকে একটা ইট পড়েছে। কিন্তু আশপাশে কোন নির্মাণাধীন ভবন নেই। ব্যাপারটা কীভাবে হয়েছে আমরা তদন্ত করছি।