ঢাকা ০৪:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বনানীতে রাস্তায় ফেলে হিরো আলমকে বেধড়ক পিটুনি

নিজস্ব সংবাদ :

ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলমকে বেধড়ক পিটিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টায় ভোট চলাকালে বনানী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হিরো আলমকে মারধরের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

সূত্রে জানা গেছে, বিকালে হিরো আলম বনানী বিদ্যানিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে যান। কলেজ ভবনের করিডোর দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করার সময় কিছু ভক্ত তার সঙ্গে সেলফি তোলেন।

ওই সময় কিছু লোক তাকে এসে বলেন, ‘এটা টিকটক ভিডিও করার জায়গা না,’ ‘এটা ভোটকেন্দ্র,’ ‘এটা গুলশান-বনানী’—এই বলে স্বতন্ত্র এই প্রার্থীকে মারধর শুরু করেন।

 

 

 

 

 

 

 

ভিডিওতে দেখা গেছে, হিরো আলমকে কেন্দ্র থেকে ধাওয়া দিয়ে বের করে নেওয়ার সময় পাশেই পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছিলেন। তাকে রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এগিয়ে আসেনি।

 

একপর্যায়ে দুর্বৃত্তরা তাকে মারতে মারতে সেখান থেকে কিছুদূর পর্যন্ত নিয়ে যান। এরপর তাকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করা হয়। এসময় আশপাশে সবাই মারধরের দৃশ্য ভিডিও করলেও তাকে রক্ষায় কাউকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি।

একপর্যায়ে নিজেকে বাঁচাতে খোঁড়াতে খোঁড়াতে দৌড়াতে থাকেন হিরো আলম। কিছু দূর যাওয়ার পর তিনি একটি রিকশায় উঠেন। এসময় দুজন তাকে সহযোগিতা করেন।এরপর রিকশা থেকে নেমে আবার তিনি দৌড়াতে শুরু করেন।

জানা গেছে, পরে হিরো আলম একটি গাড়িতে উঠে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Renaissance

আমাদের ওয়েসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আপনাদের আশে পাশের সকল সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করুন
আপডেট সময় ০৫:২২:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩
১৯০ বার পড়া হয়েছে

বনানীতে রাস্তায় ফেলে হিরো আলমকে বেধড়ক পিটুনি

আপডেট সময় ০৫:২২:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩

ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলমকে বেধড়ক পিটিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টায় ভোট চলাকালে বনানী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হিরো আলমকে মারধরের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

সূত্রে জানা গেছে, বিকালে হিরো আলম বনানী বিদ্যানিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে যান। কলেজ ভবনের করিডোর দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করার সময় কিছু ভক্ত তার সঙ্গে সেলফি তোলেন।

ওই সময় কিছু লোক তাকে এসে বলেন, ‘এটা টিকটক ভিডিও করার জায়গা না,’ ‘এটা ভোটকেন্দ্র,’ ‘এটা গুলশান-বনানী’—এই বলে স্বতন্ত্র এই প্রার্থীকে মারধর শুরু করেন।

 

 

 

 

 

 

 

ভিডিওতে দেখা গেছে, হিরো আলমকে কেন্দ্র থেকে ধাওয়া দিয়ে বের করে নেওয়ার সময় পাশেই পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছিলেন। তাকে রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এগিয়ে আসেনি।

 

একপর্যায়ে দুর্বৃত্তরা তাকে মারতে মারতে সেখান থেকে কিছুদূর পর্যন্ত নিয়ে যান। এরপর তাকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করা হয়। এসময় আশপাশে সবাই মারধরের দৃশ্য ভিডিও করলেও তাকে রক্ষায় কাউকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি।

একপর্যায়ে নিজেকে বাঁচাতে খোঁড়াতে খোঁড়াতে দৌড়াতে থাকেন হিরো আলম। কিছু দূর যাওয়ার পর তিনি একটি রিকশায় উঠেন। এসময় দুজন তাকে সহযোগিতা করেন।এরপর রিকশা থেকে নেমে আবার তিনি দৌড়াতে শুরু করেন।

জানা গেছে, পরে হিরো আলম একটি গাড়িতে উঠে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।