ঢাকা ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

নেশার টাকা জোগাড়ে শিশুসন্তান বিক্রি!

নিজস্ব সংবাদ :

শিশুসন্তানকে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে এক দম্পতির বিরুদ্ধে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনার পানিহাটির এ ঘটনায় শিশুটির মা ও দাদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে তার বাবা এখনো পলাতক রয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নেশার টাকা জোগাড় করতে আট মাসের ওই শিশুপুত্রকে বিক্রি করে দেন তার বাবা-মা। এই দম্পতির বিরুদ্ধে মাদক বিক্রির অভিযোগ রয়েছে। একাধিকবার গ্রেফতারও হয়েছেন তারা।

এরই মধ্যে শিশুপুত্রকে কয়েকদিন দেখতে না পাওয়ায় সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। রোববার এ নিয়ে শোরগোল শুরু হলে জানা যায় দুই লাখ রুপিতে শিশুপুত্রকে বিক্রি করে দিয়েছে ওই দম্পতি। বিষয়টি থানায় জানানো হলে পুলিশ শিশুটির মা ও দাদাকে গ্রেফতার করে।

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, ওই পরিবারের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মাদক বিক্রির অভিযোগ রয়েছে। দম্পতি নিজেরাও মাদকাসক্ত। মাদক কারবারে যুক্ত থাকায় একাধিকবার গ্রেফতার হয়েছেন তারা। দম্পতির একটি আট বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে।

সম্প্রতি ওই দম্পতির ৮ মাসের শিশুপুত্রকে দেখতে পাচ্ছিলেন না প্রতিবেশীরা। গত রোববার ছেলে কথা জিজ্ঞাসা করলে শিশুটির মা জানান, তাকে আত্মীয়ের বাড়িতে রেখে আসা হয়েছে। কিন্তু তার কথায় সন্দেহ হওয়ায় থানায় বিষয়টি জানানো হয়।

পরে পুলিশ গিয়ে শিশুটির মাকে জেরা করলে তিনি জানান, শিশুটিতে ২ লাখ রুপিতে একজনের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন তিনি। আপাতত ৭০ হাজার টাকা হাতে পেয়েছেন। এরপরই শিশুটির মা ও দাদাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

স্থানীয় কাউন্সিলর জানিয়েছেন, পরিবারটিকে নানাভাবে সাহায্য করা হয়েছে। কিন্তু তারা কাজ করে খাবে না। তাদের বিরুদ্ধে মাদক বিক্রির অভিযোগও রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Renaissance

আমাদের ওয়েসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আপনাদের আশে পাশের সকল সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করুন
আপডেট সময় ০৬:৩৪:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০২৩
১১১ বার পড়া হয়েছে

নেশার টাকা জোগাড়ে শিশুসন্তান বিক্রি!

আপডেট সময় ০৬:৩৪:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০২৩

শিশুসন্তানকে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে এক দম্পতির বিরুদ্ধে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনার পানিহাটির এ ঘটনায় শিশুটির মা ও দাদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে তার বাবা এখনো পলাতক রয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নেশার টাকা জোগাড় করতে আট মাসের ওই শিশুপুত্রকে বিক্রি করে দেন তার বাবা-মা। এই দম্পতির বিরুদ্ধে মাদক বিক্রির অভিযোগ রয়েছে। একাধিকবার গ্রেফতারও হয়েছেন তারা।

এরই মধ্যে শিশুপুত্রকে কয়েকদিন দেখতে না পাওয়ায় সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। রোববার এ নিয়ে শোরগোল শুরু হলে জানা যায় দুই লাখ রুপিতে শিশুপুত্রকে বিক্রি করে দিয়েছে ওই দম্পতি। বিষয়টি থানায় জানানো হলে পুলিশ শিশুটির মা ও দাদাকে গ্রেফতার করে।

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, ওই পরিবারের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মাদক বিক্রির অভিযোগ রয়েছে। দম্পতি নিজেরাও মাদকাসক্ত। মাদক কারবারে যুক্ত থাকায় একাধিকবার গ্রেফতার হয়েছেন তারা। দম্পতির একটি আট বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে।

সম্প্রতি ওই দম্পতির ৮ মাসের শিশুপুত্রকে দেখতে পাচ্ছিলেন না প্রতিবেশীরা। গত রোববার ছেলে কথা জিজ্ঞাসা করলে শিশুটির মা জানান, তাকে আত্মীয়ের বাড়িতে রেখে আসা হয়েছে। কিন্তু তার কথায় সন্দেহ হওয়ায় থানায় বিষয়টি জানানো হয়।

পরে পুলিশ গিয়ে শিশুটির মাকে জেরা করলে তিনি জানান, শিশুটিতে ২ লাখ রুপিতে একজনের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন তিনি। আপাতত ৭০ হাজার টাকা হাতে পেয়েছেন। এরপরই শিশুটির মা ও দাদাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

স্থানীয় কাউন্সিলর জানিয়েছেন, পরিবারটিকে নানাভাবে সাহায্য করা হয়েছে। কিন্তু তারা কাজ করে খাবে না। তাদের বিরুদ্ধে মাদক বিক্রির অভিযোগও রয়েছে।