ঢাকা ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

কমলাপুর রেল স্টেশনে এনএসআই ও র‍্যাবের টহল জোরদার

অনলাইন ডেস্ক

ট্রেনে আগুন জ্বালিয়ে নাশকতাকে কেন্দ্র করে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশন এলাকাসহ আশপাশের এলাকায় জনগণের জানমাল রক্ষায় বিশেষ নিরাপত্তা জোরদার করেছে সিটি এনএসআই এবং র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

সিটি এনএসআইয়ের ১২ জন এবং র‍্যাবের ৫০ জন সদস্য রেলওয়ে স্টেশনের নিরাপত্তায় চৌকস নজরদারিতে নিয়োজিত রয়েছেন। তারা সন্দেহভাজন ব্যক্তি এবং তার সঙ্গে বহনকৃত ব্যাগ তল্লাশি চালাচ্ছেন, যাতে দুষ্কৃতিকারীরা কোনো প্রকারের দাহ্য পদার্থ এবং অবৈধ মালামাল বহন করতে না পারে।

বৃহস্পতিবার বিকালে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে রেল যোগাযোগের নিরাপত্তা জোরদারকরণ বিষয়ক আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-৩ অধিনায়ক লে. কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ।

র‍্যাব বলছে, দুষ্কৃতিকারীরা কোনো অবস্থাতেই যেন কমলাপুর রেলস্টেশন এলাকায় অবস্থান করতে না পারে সেজন্য সার্বক্ষণিক টহল ও রোবাস্ট পেট্রোল জোরদার করা হয়েছে। গোয়েন্দার মাধ্যমে ট্রেনে আগুন জ্বালিয়ে নাশকতাকারীদের ওপর কঠিন নজরদারি রাখা হচ্ছ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Renaissance

আমাদের ওয়েসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আপনাদের আশে পাশের সকল সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করুন
আপডেট সময় ০২:০৫:০২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২৩
৩৩ বার পড়া হয়েছে

কমলাপুর রেল স্টেশনে এনএসআই ও র‍্যাবের টহল জোরদার

আপডেট সময় ০২:০৫:০২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২৩

ট্রেনে আগুন জ্বালিয়ে নাশকতাকে কেন্দ্র করে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশন এলাকাসহ আশপাশের এলাকায় জনগণের জানমাল রক্ষায় বিশেষ নিরাপত্তা জোরদার করেছে সিটি এনএসআই এবং র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

সিটি এনএসআইয়ের ১২ জন এবং র‍্যাবের ৫০ জন সদস্য রেলওয়ে স্টেশনের নিরাপত্তায় চৌকস নজরদারিতে নিয়োজিত রয়েছেন। তারা সন্দেহভাজন ব্যক্তি এবং তার সঙ্গে বহনকৃত ব্যাগ তল্লাশি চালাচ্ছেন, যাতে দুষ্কৃতিকারীরা কোনো প্রকারের দাহ্য পদার্থ এবং অবৈধ মালামাল বহন করতে না পারে।

বৃহস্পতিবার বিকালে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে রেল যোগাযোগের নিরাপত্তা জোরদারকরণ বিষয়ক আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-৩ অধিনায়ক লে. কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ।

র‍্যাব বলছে, দুষ্কৃতিকারীরা কোনো অবস্থাতেই যেন কমলাপুর রেলস্টেশন এলাকায় অবস্থান করতে না পারে সেজন্য সার্বক্ষণিক টহল ও রোবাস্ট পেট্রোল জোরদার করা হয়েছে। গোয়েন্দার মাধ্যমে ট্রেনে আগুন জ্বালিয়ে নাশকতাকারীদের ওপর কঠিন নজরদারি রাখা হচ্ছ।