ঢাকা ০৬:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আইএসইউ’তে জাতীয় শোক দিবস পালিত

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটি (আইএসইউ) তে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৪৮ তম শাহাদাৎবার্ষিক ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । বুধবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাখালী ক্যাম্পাসে আলোচনা সভায় আইএসইউ উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুল আউয়াল খান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইএসইউ বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার এ, কে, এম, মোশাররফ হুসাইন।
ইঞ্জিনিয়ার এ, কে, এম, মোশাররফ হুসাইন বলেন,একটি মানচিত্র ও স্বাধীন ভূখন্ডের জন্য পাকিস্তানীদের সাথে আপোষ না করে অত্যাচার, নির্যাতন-নিপীড়ন সহ্য করে তিনি স্বপ্ন দেখেছেন দেশকে স্বাধীন এবং সমৃদ্ধশালী করার । বঙ্গবন্ধু নিজের জীবন বাজি রেখে সংগ্রাম করে একটি স্বাধীন দেশ দিয়েছেন। স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্ন পূরণের পর যখন, সমৃদ্ধশালী করার কাজ করা শুরু করলেন তখনই দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র থামিয়ে দেয় ইতিহাসের মহানায়ককে । ৭৫-এর ১৫ আগষ্ট ঘাতকরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার মধ্য দিয়ে রচনা করে ইতিহাসের সবচেয়ে কলঙ্কময় দিন।
আইএসইউ উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুল আউয়াল খান বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন বিশ্ব নেতা।১৯৬৯ এর গণঅভ্যুথান থেকে ১৯৭১এর স্বাধীনতা যুদ্ধ, মাত্র এই তিন বছরের সময়কালে শুধুই নিরস্ত্র জনতার শক্তিবলে বলীয়ান হয়ে দুই দু’টি সামরিক জান্তাকে পরাস্ত করে এদেশের স্বাধীনতা নিশ্চিত সহকারে নিজেকে জাতির পিতার আসনে উন্নীত করে যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন, তার দ্বিতীয় কোন উদাহরণ, বিশ্ব ইতিহাসে পাওয়া অসম্ভব। তিনি বঙ্গবন্ধুর উপর বেশি করে গবেষণারও গুরুত্ব তুলে ধরেন ।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত ট্রেজারার এইচ, টি, এম, কাদের নেওয়াজ,ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, রেজিস্ট্রার মোঃ লুৎফর রহমান সহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারপার্সন ,শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থী ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ ।
আলোচনা শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবসহ ৭৫-এর ১৫ আগষ্ট শাহাদাত বরণকারী বঙ্গবন্ধু পরিবারের আপনজনদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Renaissance

আমাদের ওয়েসাইটে আপনাকে স্বাগতম। আপনাদের আশে পাশের সকল সংবাদ দিয়ে আমাদের সহযোগীতা করুন
আপডেট সময় ০৮:২০:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ অগাস্ট ২০২৩
৭৯ বার পড়া হয়েছে

আইএসইউ’তে জাতীয় শোক দিবস পালিত

আপডেট সময় ০৮:২০:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ অগাস্ট ২০২৩

ইন্টারন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড ইউনিভার্সিটি (আইএসইউ) তে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৪৮ তম শাহাদাৎবার্ষিক ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । বুধবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাখালী ক্যাম্পাসে আলোচনা সভায় আইএসইউ উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুল আউয়াল খান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইএসইউ বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার এ, কে, এম, মোশাররফ হুসাইন।
ইঞ্জিনিয়ার এ, কে, এম, মোশাররফ হুসাইন বলেন,একটি মানচিত্র ও স্বাধীন ভূখন্ডের জন্য পাকিস্তানীদের সাথে আপোষ না করে অত্যাচার, নির্যাতন-নিপীড়ন সহ্য করে তিনি স্বপ্ন দেখেছেন দেশকে স্বাধীন এবং সমৃদ্ধশালী করার । বঙ্গবন্ধু নিজের জীবন বাজি রেখে সংগ্রাম করে একটি স্বাধীন দেশ দিয়েছেন। স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্ন পূরণের পর যখন, সমৃদ্ধশালী করার কাজ করা শুরু করলেন তখনই দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র থামিয়ে দেয় ইতিহাসের মহানায়ককে । ৭৫-এর ১৫ আগষ্ট ঘাতকরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার মধ্য দিয়ে রচনা করে ইতিহাসের সবচেয়ে কলঙ্কময় দিন।
আইএসইউ উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুল আউয়াল খান বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন বিশ্ব নেতা।১৯৬৯ এর গণঅভ্যুথান থেকে ১৯৭১এর স্বাধীনতা যুদ্ধ, মাত্র এই তিন বছরের সময়কালে শুধুই নিরস্ত্র জনতার শক্তিবলে বলীয়ান হয়ে দুই দু’টি সামরিক জান্তাকে পরাস্ত করে এদেশের স্বাধীনতা নিশ্চিত সহকারে নিজেকে জাতির পিতার আসনে উন্নীত করে যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন, তার দ্বিতীয় কোন উদাহরণ, বিশ্ব ইতিহাসে পাওয়া অসম্ভব। তিনি বঙ্গবন্ধুর উপর বেশি করে গবেষণারও গুরুত্ব তুলে ধরেন ।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত ট্রেজারার এইচ, টি, এম, কাদের নেওয়াজ,ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, রেজিস্ট্রার মোঃ লুৎফর রহমান সহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারপার্সন ,শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থী ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ ।
আলোচনা শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবসহ ৭৫-এর ১৫ আগষ্ট শাহাদাত বরণকারী বঙ্গবন্ধু পরিবারের আপনজনদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।